কম্পিউটার হার্ডওয়্যার এর প্রকারভেদ | হার্ডওয়্যার ও সফটওয়্যার কি এবং কত প্রকার

হার্ডওয়্যার ও সফটওয়্যার কি এবং কত প্রকার

কম্পিউটার হার্ডওয়্যার এর প্রকারভেদ- আপনি যদি কম্পিউটার বা মোবাইল ফোন ব্যবহার করেন তাহলে অবশ্যই হার্ডওয়্যার এবং সফটওয়্যার এর নাম শুনেছেন। hardware এবং software ছড়া কম্পিউটারের কোন অস্তিত্ব থাকবে না। হার্ডওয়ার বলতে বোঝায় কম্পিউটারের যে প্রধান অংশগুলো আপনি দেখতে পান সেগুলো হচ্ছে hardware

হার্ডওয়ার এর উদাহরণ হচ্চে মাউস, কিবোর্ড, মনিটর মাদারবোর্ড, হার্ডডিস্ক, সিপিইউ, ইউপিএস ইত্যাদি।

কম্পিউটার হার্ডওয়্যার কি ? হার্ডওয়্যার কত প্রকার ও কি কি

Software হচ্ছে কম্পিউটারের প্রোগ্রাম। এই কম্পিউটারের হার্ডওয়ার কে কাজে লাগিয়ে সফটওয়্যার প্রোগ্রামগুলো কম্পিউটারে চলে। আপনাদেরকে একটি উদাহরন দিয়ে এ বিষয়টি আরো ভালো করে বুঝিয়ে দিই। আমরা কিন্তু আগে জানলাম হার্ডওয়ারের অংশগুলি কি কি আপনি কি কিবোর্ড ছড়া টাইপিং করতে পারবেন ? আপনি কি মাউস ছাড়া কম্পিউটারের যেকোন জায়গায় ক্লিক করতে পারবেন ? না পারবেন না ।

তো আজকের আর্টিকেলে আমরা আলোচনা করব হার্ডওয়ার কাকে বলে (hardware kake bole) | হার্ডওয়্যার এর কাজ কি?

এই আর্টিকেলটি সম্পূর্ণ পড়লে হার্ডওয়্যার এর এর সমস্ত খুঁটিনাটি বিষয়ে ভালোভাবে জানতে পারবেন তো চলুুন হার্ডওয়্যার বলতে কি বুঝ  য় জেনে নিই।

কম্পিউটার হার্ডওয়্যার কি?

কম্পিউটারের যে ভৌত অংশগুলো আমরা দেখতে পাই এবং স্পর্শ করতে পারি তাকে হার্ডওয়্যার বলে। hardware কম্পিউটার একটি ভৌত উপাদান এবং এই উপাদানটি Circuit board, ICs এবং অন্যান্য ইলেকট্রনিক্স নিয়ে গঠিত।

হার্ডওয়্যার ছাড়া কম্পিউটারে কোন অস্তিত্ব নেই। আপনি এই আর্টিকেলটি যে ডিভাইসের স্ক্রিনে পড়ছেন (মোবাইল ফোন বা কম্পিউটার) এই স্ক্রিনটাও কিন্তু হার্ডওয়ারের অংশ। আশা করি হার্ডওয়্যার কি এই ব্যাপারটা আপনাদেরকে বুঝাতে পেরেছি।
হার্ডওয়্যার এর কয়টি অংশ হার্ডওয়্যার এর মূলত দুইটি অংশ সেগুলো নিচে বিস্তারিত আলোচনা করা হলো।

১. Internal Hardware

কম্পিউটারে ভিতরে যে হার্ডওয়ার এর উপাদান রয়েছে তাকে Internal Hardware বলে । এই হার্ডওয়্যার গুলি  দেখার জন্য কম্পিউটার খুলতে হয়। ইন্টারনাল হার্ডওয়্যার এর উদাহরণ হল

        • CPU
        • MODEM
        • MOTHERBOARD
        • POWER SUPPLY
        • RAM
        • DRIVE
        • GRAPHICS CARD ইত্যাদি

২. External Hardware

কম্পিউটারে বাইরে ইনস্টল করা যে হার্ডওয়ার ডিভাইস থাকে তাকে External Hardware বলে। এই ধরনের হার্ডওয়্যার ডিভাইসকে সহজে দেখা দেয় এবং ছোঁয়া যায়। External Hardware এর উদাহরণ হল
        • KEYBOARD
        • MOUSE
        • PRINTER
        • HARD DRIVE
        • MONITOR
        • SPEAKER
        • HEADPHONE ইত্যাদি

হার্ডওয়্যার কত প্রকার ও কি কি ?

আসুন এবার জেনে নেই কম্পিউটার হার্ডওয়্যার কত প্রকার ও কি কি। কম্পিউটার হার্ডওয়্যার ডিভাইসকে মূলত চারটি ভাগে ভাগ করা হয় সেগুলো নিচে বিস্তারিত আলোচনা করা হলো

কম্পিউটার হার্ডওয়্যার এর প্রকারভেদ

১. Input Device (ইনপুট ডিভাইস কাকে বলে)

ইনপুট ডিভাইস হল এমন এক ধরনের হার্ডওয়ার ডিভাইস যা কম্পিউটারে deta বা information প্রদান করে। ইনপুট ডিভাইস কম্পিউটারের ও ব্যবহারকারী মধ্যে যোগাযোগব্যবস্থা সহজ করে তোলে। সবথেকে জনপ্রিয় ইনপুট ডিভাইস।

২. Output Device (আউটপুট ডিভাইস কাকে বলে)

আউটপুট ডিভাইস হল এমন এক ধরনের hardware device যা কম্পিউটারের ইনপুট ডিভাইস এর প্রদত্ত নির্দেশাবলীগুলি যে যন্ত্রে (monitor, printer) দৃশ্যমান হয় তাকে আউটপুট ডিভাইস বলে অর্থাৎ এই ডিভাইসগুলি প্রায় ব্যবহারকারীদেরকে তথ্য Screen এ প্রদর্শন করতে ব্যবহার করা হয়। আউটপুট ডিভাইস এর উদাহরণ হল, Monitor, Projector, Printer, GPS, video card ইত্যাদি।

৩. Processing Device (প্রসেসিং ডিভাইস)

Processing Device। এই ডিভাইস গুলি কম্পিউটারের মধ্যে তথ্য প্রক্রিয়াকরণের কাজ করে। Processing Device এর উদাহরণ হল Central Processing Unit (CPU), Graphics Processing Unit (GPU) ইত্যাদি।

হার্ডওয়্যার ও সফটওয়্যার কি এবং কত প্রকার

৪. Storage Device (স্টোরেজ ডিভাইস)

স্টোরেজ ডিভাইস হচ্ছে কম্পিউটার  হার্ডওয়ার এর একটি গুরুত্বপূর্ণ অংশ যেখানে ডেটা স্থায়ীভাবে বা সাময়িকভাবে স্টোর করে রাখতে পারি । Storage Device এর উদাহরণ হচ্ছে Hard disc, Foloppy disc, SSD, HDD, DVD ইত্যাদি ।
হার্ডওয়্যার এর কাজ কি কম্পিউটার হার্ডওয়্যার এর কাজ কি সেগুলো নিচে বিস্তারিত আলোচনা করা হলো
স্টোরেজঃ ডিভাইসের (HDD, SSD) মাধ্যমে ডাটা সেখানে আপনারা স্টোর করে রাখতে পারবেন ।


কম্পিউটার হার্ডওয়্যার  বলতে কি বুঝায় (Hardware meaning in bengali) এই আর্টিকেলটি যদি আপনাদের ভালো লেগে থাকে তাহলে অবশ্যই নিচে কমেন্ট বক্সে আপনাদের মতামত জানাতে পারেন এবং আপনার বন্ধুদেরকে এই পোস্টটি শেয়ার করতে পারেন ধন্যবাদ।

You May Also Like

About the Author: nepalgain11

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *